বুধবার, ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৩:৪৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম
শিরোনাম
বিশ্বকাপ হাতে নিয়ে তদন্তের মুখে পড়লেন সল্ট বে কুষ্টিয়ায় শীতার্থদের মাঝে বিচারপতি আবু জাফর সিদ্দিকীর কম্বল বিতরন কুষ্টিয়ায় বিচারপতি আবু জাফর সিদ্দিকীর বৃক্ষ রোপন কুষ্টিয়ায় আপিল বিভাগের বিচারপতি আবু জাফর সিদ্দিকীকে সম্মাননা প্রদান কুষ্টিয়ার হরিনারায়ণপুর মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ে মহান বিজয় দিবস উদযাপন কুষ্টিয়ার গোস্বামী দুর্গাপুর ইউনিয়ন পরিষদে মহান বিজয় দিবস উদযাপন কুষ্টিয়ার লক্ষীপুরে জঙ্গীবাদ বিরোধী বিক্ষোভ মিছিল ইবির ছাত্রকে পেটালানে ছাত্রলীগ কর্মী; তদন্ত কমিটি গঠন কুষ্টিয়ার তিন উপজেলা ছাত্রলীগের মানববন্ধন কুষ্টিয়ায় জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদককে গণপিটুনী

‘গর্ভবতী মায়েরা টিকা নিতে পারবেন’

নিজস্ব প্রতিবেদক / ২৮১ বার পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ১৯ আগস্ট, ২০২১, ১১:০২ অপরাহ্ন

প্রতিদিন করোনার সংক্রমণ ও মৃত্যুহারের সঙ্গে বাড়ছে করোনায় আক্রান্ত গর্ভবতী নারীর মৃত্যুর সংখ্যা। কিন্তু গর্ভবতী নারীকে টিকার আওতায় আনা হয়নি। বাংলাদেশে গর্ভবতী নারীদের টিকা কর্মসূচির আওতার বাইরে রাখায় বাড়ছে মাতৃ ও শিশু মৃত্যুর ঘটনা। বিজ্ঞজনেরা বলছেন, গর্ভবতী মায়েরা টিকা নিতে পারবেন, এতে কোনো বাধা নেই। বিশ্বের অনেক দেশে দেওয়া হচ্ছে। কিন্তু স্বাস্থ্য অধিদপ্তর বলছে, এ ব্যাপারে টিকাবিষয়ক বিশেষ কমিটি নাইট্যাগ (ন্যাশনাল ইমিউনাইজেশন টেকনিক্যাল অ্যাডভাইজরি গ্রুপ) এখন পর্যন্ত স্বাস্থ্য অধিদপ্তরকে কোনো পরামর্শ দেয়নি।

গর্ভবতী মায়েরা গর্ভধারণের যে কোনো সময় কোভিড-১৯ প্রতিরোধে টিকা নিতে পারবেন। এতে মা ও সন্তানের কোনো ক্ষতি হবে না বলে মন্তব্য করেন অবস্ট্রাক্টিক্যাল অ্যান্ড গাইনোকোলজিক্যাল সোসাইটি অব বাংলাদেশের (ওজিএসবি) সাবেক সভাপতি অধ্যাপক ডা. সামীনা চৌধুরী। তিনি বলেন, ‘বিশ্বময় গবেষণায় দেখা গেছে, গর্ভবতী মায়েদের টিকা নেওয়ায় কোনো সমস্যা হয় না বরং লাভ হয়, তাদের ঝুঁকি কমে। যে মা শিশুকে দুধ খাওয়ান, তিনি টিকা নিলে শিশুর করোনা ঝুঁকি কমে। তাই আমরা (ওজিএসবি) সরকারকে গর্ভবতী মাকে টিকার আওতায় আনার প্রস্তাব করেছি।’ এর পক্ষে অনেক প্রমাণ থাকার পরেও কেন গর্ভবতী মাকে টিকা দেওয়া হবে না—জানতে চান তিনি।

ওজিএসবির সভাপতি অধ্যাপক ফেরদৌসী বেগম বলেন, গর্ভবতী ও প্রসূতি নারীদের কোভিড-১৯ সংক্রমণ এবং এর ফলে মারাত্মক অসুস্থতার ঝুঁকি অনেক বেশি। কোভিড-১৯-এ আক্রান্ত নারীদের মধ্যে অপরিণত শিশু জন্ম দেওয়ার হার বেশি। যদিও গর্ভবতী নারীর ওপর টিকার প্রভাবের তথ্য সীমিত। তার পরও দেখা গেছে, টিকা দেওয়ার ফলে গর্ভস্থ শিশু ও নবজাতকের কোনো বিরূপ প্রভাব দেখা যায়নি।

করোনায় আক্রান্ত গর্ভবতী মায়ের চিকিত্সাপ্রাপ্তির অন্যতম স্থান ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল। এই হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল নাজমুল হক বলেন, এখানে ভর্তি হওয়া ৩৫ শতাংশ গর্ভবতী নারী কোভিডে আক্রান্ত। তাদের মৃত্যুর ঝুঁকিও অনেক বেশি। গর্ভবতী নারীদের টিকা দেওয়ার বিষয় একটি জাতীয় সিদ্ধান্ত। এ ব্যাপারে টিকাবিষয়ক বিশেষ কমিটি নাইট্যাগ (ন্যাশনাল ইমিউনাইজেশন টেকনিক্যাল অ্যাডভাইজরি গ্রুপ) এখন পর্যন্ত স্বাস্থ্য অধিদপ্তরকে কোনো পরামর্শ দেয়নি বলে জানান অধিদপ্তরের নেটারনেল অ্যান্ড নিউ নেটাল চাইল্ড অ্যান্ড এডোলেসন হেলথ ডিরেক্টর ড. মো. শামসুল হক।

তিনি বলেন, ‘এ বিষয়ে আমরা এখন অবধি কোনো পরামর্শ পাইনি। সেন্টারস ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন (সিডিসি) বলেছে, করোনার ঝুঁকি এড়াতে অন্তঃসত্ত্বা নারীদের অবশ্যই টিকা নেওয়া উচিত। আর প্রবীণ চিকিৎসক ও করোনা বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ডা. এ বি এম আবদুল্লাহ বলেন, গর্ভবতী মা ও দুধদানকারী প্রসূতি মা করোনা প্রতিরোধে টিকা নিতে পারবেন এবং তাদের টিকা দেওয়া উচিত। বিশ্বের অনেক দেশেই দেওয়া হচ্ছে। কারণ গর্ভবতী মা করোনায় আক্রান্ত হলেই ঝুঁকি বাড়ে।


এ জাতীয় আরো খবর ....
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
Translate »
error: Content is protected !!
Translate »
error: Content is protected !!