শুক্রবার, ০১ মার্চ ২০২৪, ১২:০১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
শিরোনাম
সাতক্ষীরা পৌর এলাকায় সুপেয় পানি সরবরাহ নিশ্চিত ও বর্ধিত পানির বিল প্রত্যাহারের দাবীতে গণঅবস্থান কর্মসূচী গাবুরা ইউনিয়ন জলবায়ু সহনশীল ফোরামের অর্ধবার্ষিক সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত শ্যামনগরে আমন মৌসুমে ১১৪৮০ কেজি ধানবীজ ও ৯১৮৪ কেজি সার বিতরণ করেছে লিডার্স ব্যাঙ সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধিতে সাইক্লিং রবিবার থেকে শুরু হচ্ছে এসএসসি, দাখিল ও সমমানের পরীক্ষা ঝিনাইদহে বর্নাঢ্য আয়োজনে জাতীয় আইনগত সহায়তা দিবস পালিত কুষ্টিয়ায় ভেজাল কসমেটিকস কারখানায় র‍্যাবের অভিযান,দের লক্ষ টাকা জরিমানা হেশেল ঘরে ঘুমন্ত অবস্থায় আগুনে পুড়ে দুই শিশুর মৃত্যু কুষ্টিয়ায় বিএনপির অবস্থান কর্মসূচি আল্লারদর্গা প্রেসক্লাবের আয়োজনে দোয়া ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত

মিরপুরে বিদ্যুৎ বিল পরিশোধে সাড়া নেই পৌর মেয়রের!

মেজবা উদ্দিন পলাশ / ৪৩৩ বার পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : বুধবার, ৪ আগস্ট, ২০২১, ৯:২৭ অপরাহ্ন

কুষ্টিয়ার মিরপুর পৌর মার্কেট মসজিদের ২লক্ষ ৯ হাজার ৭৬ টাকার বিদ্যুৎ বিল বকেয়া হয়েছে। ২০১৪ হতে ২০২১ সাল পর্যন্ত বিভিন্ন সময়ে মোট ৫২ মাস ধরে বিল পরিশোধ না করায় এই বিপুল অর্থ বকেয়া রয়েছে। বারবার তাগাদা দিলেও বিল পরিশোধ না করায় মসজিদটি সংযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে।

জানা গেছে,ওই মসজিদ কমিটির সভাপতি স্বয়ং মিরপুর পৌরসভার মেয়র এনামুল হক। প্রায় চার বছরের অধিক সময় ধরে ওই মসজিদের বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করা হয় না। স্থানীয় পল্লীবিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ একাধিকবার বিল পরিশোধে তাগাদা দিয়ে মসজিদ কমিটিকে চিঠিও দিয়েছে। কিন্তু মসজিদ কমিটির সভাপতি পৌর মেয়র এনামুল হক এতে সাড়া দেননি।

এদিকে মাসের-পর-মাস বিল পরিশোধ না করায় মসজিদ কমিটির কাছে বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষের বিপুল পরিমাণ অর্থ অনাদায়ী হয়ে পড়ে। বিদ্যুৎ না থাকায় চরম বিপাকে পড়েছেন মসজিদের মুসল্লিরা। নামাজ পড়তে গরমের কারণে ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে তাদের। মুসল্লিরা বলছেন,এত বড় একটি মসজিদ সেখানে বিদ্যুৎ নেই ৭ দিন ধরে। এটা খুবই দুঃখজনক। বিষয়টি দ্রুত সমাধানের দাবি জানান তারা।

মিরপুর উপজেলা নাগরিক কমিটির সাধারণ সম্পাদক নজরুল করিম বলেন,মোটা অঙ্কের এ বিলের বিষয়টি নিষ্পত্তি না হলে অন্য সংস্থার মাঝেও বিদ্যুৎ বিল না দেওয়ার প্রবণতা তৈরি হবে। এতে সরকারি রাজস্ব আদায়ে বিরূপ প্রভাব ফেলতে পারে বলে মনে করেন তিনি। ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান মসজিদ। তাই বিষয়টি দ্রুত সমাধানের দাবি জানাচ্ছি।

তবে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির মিরপুর জোনাল অফিসের ডিজিএম প্রকৌ: মো.এনামুল হক বলেন, আজ পৌর মসজিদ কমিটি আমাদের কাছে মসজিদের লোড বৃদ্ধির একটি আবেদন করেছেন। আগামী কাল বকেয়া বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করবেন বলে পৌর মেয়র মহোদয় মৌখিকভাবে আশ্বাস দিয়েছেন। পৌর মসজিদের লাইনটি আমাদের অফিস থেকে বিচ্ছিন্ন করা হয়নি। লাইনটিতে অতিরিক্ত লোড থাকার কারণে মিটারটি পুড়ে নষ্ট হয়ে গেছে। নিয়ম অনুযায়ী বকেয়া বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করার পরেই আবারও সংযোগটি চালুর ব্যবস্থা করা হবে।

তিনি আরও জানান,নতুন চাহিদাকৃত লোডের সংকুলান করতে বিদ্যুৎ লাইনে নতুন ট্রান্সফর্মার স্থাপনসহ কিছু সংস্কার করা প্রয়োজন হবে। যার জন্য কিছুটা সময় লাগতে পারে।একই সাথে তিনি দ্রুত বকেয়া বিদ্যুৎ বিল পরিশোধের জন্য পৌর কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ জানিয়েছেন।

এ ব্যাপারে মিরপুর পৌরসভার মেয়র এনামুল হকের সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন,
মোবাইল ফোনে কিছু বলা যাবে না। সরাসরি দেখা হলে বিষয়টি জানানো হবে।


এ জাতীয় আরো খবর ....
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
Translate »
error: Content is protected !!
Translate »
error: Content is protected !!