বুধবার, ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৪:২১ অপরাহ্ন
শিরোনাম
শিরোনাম
বিশ্বকাপ হাতে নিয়ে তদন্তের মুখে পড়লেন সল্ট বে কুষ্টিয়ায় শীতার্থদের মাঝে বিচারপতি আবু জাফর সিদ্দিকীর কম্বল বিতরন কুষ্টিয়ায় বিচারপতি আবু জাফর সিদ্দিকীর বৃক্ষ রোপন কুষ্টিয়ায় আপিল বিভাগের বিচারপতি আবু জাফর সিদ্দিকীকে সম্মাননা প্রদান কুষ্টিয়ার হরিনারায়ণপুর মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ে মহান বিজয় দিবস উদযাপন কুষ্টিয়ার গোস্বামী দুর্গাপুর ইউনিয়ন পরিষদে মহান বিজয় দিবস উদযাপন কুষ্টিয়ার লক্ষীপুরে জঙ্গীবাদ বিরোধী বিক্ষোভ মিছিল ইবির ছাত্রকে পেটালানে ছাত্রলীগ কর্মী; তদন্ত কমিটি গঠন কুষ্টিয়ার তিন উপজেলা ছাত্রলীগের মানববন্ধন কুষ্টিয়ায় জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদককে গণপিটুনী

লুটের ২৪ লাখের মধ্যে ১০ লাখ টাকা জুয়ায় ফিনিস!

নিজস্ব প্রতিবেদক / ১৩৩ বার পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৮:২০ পূর্বাহ্ন

সিলেটের ওসমানীনগরে ব্যাংক থেকে লুট করা ২৪ লাখ ২৫ হাজার ৫০০ টাকার মধ্যে ১০ লাখ টাকা জুয়া খেলে নষ্ট করা হয়েছে বলে এ মামলায় গ্রেফতাররা জানিয়েছে।

এছাড়া মামলার চার আসামির ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর হয়েছে। বৃহস্পতিবার সিলেটের জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম আদালতে হাজির করে সাত দিনের রিমান্ড চাওয়া হলে বিচারক মাহবুবুল হক ভুঁইয়া ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ওসমানীনগর থানার এসআই মিল্টন দেব বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

রিমান্ড মঞ্জুর হওয়া আসামিরা হলো- শামীম আহম্মেদ, নূর মোহাম্মদ, আব্দুল হালিম ও সাফি উদ্দিন জাহির।

এর আগে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন জানান, গত বুধবার সন্ধ্যায় হবিগঞ্জ থেকে গ্রেফতার করা হয় জাহিরকে। এটিএম বুথ লুটের সঙ্গে জাহির সরাসরি জড়িত এবং এ ঘটনার অন্যতম পরিকল্পনাকারী।

পুলিশ জানায়, আসামিরা লুটের প্রায় ১০ লাখ টাকা ইতোমধ্যে জুয়া খেলে ফিনিস করে দিয়েছে বলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছে।

ওসমানীনগর উপজেলার শেরপুর পশ্চিম বাজারের ইউসিবিএলের এটিএম বুথে গত ১১ সেপ্টেম্বর ভোরে ডাকাতির এ ঘটনা ঘটে। চার মুখোশধারী বুথে ঢুকে নিরাপত্তাকর্মীকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে বেঁধে ২৪ লাখ ২৫ হাজার ৫০০ টাকা লুট করে।

এ ঘটনায় রোববার ইউসিবিএল ব্যাংকের শেরপুর শাখা ব্যবস্থাপক সৈয়দ আশরাফুল আমিন বাদী হয়ে অজ্ঞাত চার দুষ্কৃতকারীকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন। ব্যাংক কর্তৃপক্ষ এ ঘটনায় মামলা করলে আসামিদের গ্রেফতারে ওসমানীনগর থানা পুলিশ ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) সাইবার ইউনিটের কাছে সহযোগিতা চায়। এরই ধারাবাহিকতায় গ্রেফতার হয় শামীম আহম্মেদ, নূর মোহাম্মদ, আব্দুল হালিম ও সাফি উদ্দিন জাহির।

সূত্র: যুগান্তর


এ জাতীয় আরো খবর ....
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
Translate »
error: Content is protected !!
Translate »
error: Content is protected !!