শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ০৮:৪৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
শিরোনাম
বেনজিনের নাভানা পার্ক বন্ধ ঘোষণা নিজ বাসা থেকে বাবা- মেয়ের মরা দেহ উদ্ধার সন্ধ্যার মধ্যে তীব্র ঝড় যেসব অঞ্চলে কুষ্টিয়ায় রেলের কৃষিজমি ৮০ হাজার টাকা কাঠায় বিক্রি, বাড়ি নির্মাণ হিট স্ট্রোকে অটোচালকের মৃত্যু পরকীয়া করতে গিয়ে যুবক খুন, আটক ৩ ভোট গ্রহনে অনিয়ন হলে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের চাকুরী থাকবে না… নির্বাচন কমিশনার সাতক্ষীরা পৌর এলাকায় সুপেয় পানি সরবরাহ নিশ্চিত ও বর্ধিত পানির বিল প্রত্যাহারের দাবীতে গণঅবস্থান কর্মসূচী গাবুরা ইউনিয়ন জলবায়ু সহনশীল ফোরামের অর্ধবার্ষিক সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত শ্যামনগরে আমন মৌসুমে ১১৪৮০ কেজি ধানবীজ ও ৯১৮৪ কেজি সার বিতরণ করেছে লিডার্স

৫ দিন ধরে নিখোঁজ সিলেটের ট্রাভেল ব্যবসায়ী

নিজস্ব প্রতিবেদক / ২০৩ বার পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : রবিবার, ১৩ মার্চ, ২০২২, ১১:৩৯ অপরাহ্ন

সিলেটের ট্রাভেল ব্যবসায়ী জাহাঙ্গীর খাঁন রাজু (৩১) গত পাঁচদিন ধরে নিখোঁজ। এ ঘটনায় থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছে পরিবার।

গত ৮ মার্চ সিলেট থেকে ঢাকার উদ্দেশে রওনা হন রাজু। ৯ মার্চ পরিবারের সঙ্গে শেষ কথা হয় তার। এরপর থেকে তিনি নিখোঁজ রয়েছেন।

ব্যবসায়ী রাজু ওসমানীনগর উপজেলার উছমানপুর ইউপির ব্রাহ্মণশাসন (বারিগাঁও) গ্রামের মৃত আব্দুল গফুর খানের ছেলে।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, সিলেট নগরীরর বন্দরবাজারে রংমহল টাওয়ারে শাহপরান ট্রাভেলস ও ওসমানীনগরের দয়ামীরবাজারের ডিএম টাওয়ারে শাহ জালাল ট্রাভেলস নামে দুটি ট্রাভেলস রয়েছে রাজুর। ১৫ বছর ধরে তিনি এ ব্যবসার সঙ্গে জড়িত।

প্রায় আট মাস আগে রাজু সিলেট নগরীর বন্দরবাজারের সুরমা টাওয়ারের মুন্নি ট্রাভেলসের মালিক কুমিল্লা লাকসামের বাসিন্দা মো. ইসমাইলের ছেলে মিজানুর রহমানের সঙ্গে সৌদি আরবে কয়েকজন লোক পাঠানোর বিষয়ে যোগাযোগ করেন।

এ ট্রাভেলসের মালিক মিজানকে সাতজন ব্যক্তির সাতটি পাসপোর্ট এবং সাড়ে সাত লাখ টাকা সৌদি আরব ভিসা প্রসেসিংয়ের জন্য দেন।

কিছুদিন পর রাজুসহ আরও অনেকের টাকা নিয়ে আত্মগোপনে চলে যান মিজান। নানাভাবে যোগাযোগের চেষ্টা করেও পাওনা টাকা উদ্ধার করতে পারেননি রাজু।

রোববার দুপুরে নিখোঁজ রাজুর বাড়িতে যান এ প্রতিবেদক। এ সময় তার ছোট ভাই মো. খালেদ খান বলেন, ৮ মার্চ মিজানুর রহমান বিভিন্ন নম্বর থেকে আমার ভাইকে মোবাইলে কল করে জানান ঢাকায় গেলে পাসপোর্ট ও কিছু টাকা ফেরত দেবে। মিজানের মুন্নি ট্রাভেলস নামে ঢাকায় আরেকটি ট্রাভেলস রয়েছে। মিজানের কথা মতো ৮ মার্চ রাত ১১টার দিকে সিলেট থেকে ঢাকার উদ্দেশে রওনা দেন আমার ভাই। ৯ মার্চ সন্ধ্যার পর আমার ভাবির সঙ্গে শেষ কথা হয়। তিনি ঢাকা পৌঁছেছেন বলে জানান। এরপর থেকে ভাইয়ের মোবাইল বন্ধ পাওয়া যাচ্ছে। পাঁচদিনেও আমার ভাইয়ের কোনো সন্ধান পাচ্ছি না।

এ ঘটনায় মিজানুর রহমানকে আসামি করে ওসমানীনগর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছি বলে জানান তিনি।

ওসমানীনগর থানার ওসি এসএম মাইন উদ্দিন বলেন, ঘটনাটি সিলেট ও ঢাকার। নিখোঁজ ব্যক্তির বাড়ি আমার থানা এলাকায় হওয়ায় মানবিক দিক বিবেচনায় অভিযোগটি গ্রহণ করেছি। নিখোঁজের ভাইকে সিলেট থানায় মামলা করার পরামর্শ দিয়েছি।

সূত্রঃ যুগান্তর


এ জাতীয় আরো খবর ....
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
Translate »
error: Content is protected !!
Translate »
error: Content is protected !!