শুক্রবার, ১৪ মে ২০২১, ১০:০৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
শিরোনাম :
কুষ্টিয়ায় দুস্থ ও অসহায়দের মাঝে মহিলা আওয়ামীলীগের ঈদ বস্ত্র বিতরণ শাড়ী, লুঙ্গী ও খাদ্যসামগ্রীর সাথে মুরগীও পেলেন দুস্থ্য ও হতদরিদ্ররা হারভেস্টার মেশিন থাকলে কৃষকরা অনেক লাভবান হবেন: ডিসি কুষ্টিয়া কুষ্টিয়ায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন বিএডিসি কর্মকর্তা ঈদের দিনেও ঝড়বৃষ্টি বজ্রপাতের আভাস প্রবাসী জয় নেহালের সহযোগিতায় কুষ্টিয়া দিনমনি স্কুলের ছাত্রদের মাঝে ঈদ উপহার বিতরণ সবুজকলি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের উদ্যোগে ইউএনও সোহেল মারুফের বিদায় সম্বর্ধনা দৌলতপুরে নিখোঁজ শিশুর অর্ধগলিত বস্তা বন্দী লাশ প্রতিবেশীর বাড়ি থেকে উদ্ধার ১০ মায়ের মুখে হাসি ফোটাল কুষ্টিয়ার ‘মবিঅ’ কুষ্টিয়ায় একদল তরুনদের উদ্যোগে হতদরিদ্র পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ
ঘোষণা:
পরীক্ষামূলক সম্প্রচার চলছে...

নেশা নয়, খেলায় এগিয়ে আসার আহবান যুবসমাজের প্রতি

নিজস্ব প্রতিবেদক / ১১৫ বার পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : শনিবার, ২০ ফেব্রুয়ারী, ২০২১, ৯:০৭ অপরাহ্ন

খেলা ভালোবাসে না এমন লোক কমই আছে। আর সেই খেলা যদি হয় ক্রিকেট তাহলে তো কথায় থাকেনা। যুবকদের কাছে অত্যান্ত জনপ্রিয় খেলা ক্রিকেট।যুব সমাজকে ধ্বংসের থেকে রক্ষা করতে খেলা অত্যান্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। খেলাধুলায় মনোনিবেশ করলে নেশাজাতীয় দ্রব্য থেকে অনেক দূরে থাকে মানুষ। বাংলাদেশের অত্যন্ত জনপ্রিয় খেলা ক্রিকেট।ক্রিকেট খেলা শহর থেকে গ্রাম অঞ্চলেও গুরুত্ব বহন করে আসছে।গ্রাম এলাকায় কখনো খেলার ফিল্ডে কখনো বা বাগানের মধ্যে এই খেলাটি হয়ে থাকে।তাই নেশাকে ‘না’ বলে প্রতিদিন মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার বামন্দী ইউনিয়নের দেবীপুর গ্রামে যুবসমাজ ক্রিকেটের মধ্যে থাকে।

খেলোয়াড়েরা জানান,ক্রিকেট খেলা আমাদের নিকট অত্যন্ত জনপ্রিয়।আমরা খেলার ভেতর থাকি তাই নেশাজাতীয় দ্রব্য আমাদের আকৃষ্ট করতে পারে না। আমাদের পর্যাপ্ত পরিমাণ কোন খেলার সরঞ্জাম নেই। আর খেলার পর্যাপ্ত সরঞ্জাম না থাকার কারণে অনেকের আগ্রহ হারিয়ে যাচ্ছে। তাই সমাজের নেতৃবৃন্দের কাছে খেলা সরঞ্জাম দেওয়ার জন্য উদাত্ত আহ্বান জানাচ্ছি।

এলাকার সুধীজনরা জানান,অত্যন্ত ভালো লাগছে এখানকার ছেলেরা খেলাধুলায় মগ্ন থাকে।প্রতিদিনই দেখি তারা খেলার ভিতর ডুবে আছে, আর আমাদের এখানে গ্রামের ক্রিকেট খেলাটা অত্যন্ত জনপ্রিয়। উঠতি বয়সী ছেলেরা এখানে ক্রিকেট খেলে থাকে।তাই যুবসমাজকে নেশা ছেড়ে খেলাধুলার এগিয়ে আসার আহ্বান জানাচ্ছি।কারণ নেশা শুধু তাঁকেই না পুরো পরিবারটা ধ্বংস করে দেয়।

বামন্দী ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ডের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোঃ ছাবদার আলী জানান, এলাকার যুবসমাজ খেলা সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে যদি আমার কাছে আসে তাহলে আমি তাদের ব্যক্তিগত ভাবে সার্বিক সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেব এবং সমাজের সকলকে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেওয়ার আহবান জানাচ্ছি যাতে যুবসমাজ নেশায় জড়িয়ে না পড়ে।কারণ এই যুবসমাজ আগামীতে দেশকে এগিয়ে নিতে ভূমিকা রাখবে। নেশা নয়, খেলায় এগিয়ে আসার আহবান করছি যুবসমাজকে।

বর্তমান মেম্বার আলফাজ উদ্দিন জানান,আমি ব্যক্তিগতভাবে তাদের অত্যান্ত ধন্যবাদ জানাচ্ছি। তারা খারাপ কাজ থেকে দূরে থেকে যে খেলায় মনোনিবেশ করেছে, প্রতিটি গ্রামে যদি এমন খেলাধুলার ব্যবস্থা থাকে তাহলে যুবসমাজ আস্তে আস্তে নেশা থেকে অনেক দূরে সরে যাবে। আমরা সমাজের যারা সমাজপতি আছি তারা সবাই মিলে চেষ্টা করবো যাতে খেলাধুলা চলমান থাকে এবং তাদেরকে সহযোগিতা করবো।


আপনার মতামত লিখুন :
এ জাতীয় আরো খবর ....
এক ক্লিকে বিভাগের খবর