বুধবার, ২৩ জুন ২০২১, ০৮:৫০ পূর্বাহ্ন
ঘোষণা:
পরীক্ষামূলক সম্প্রচার চলছে...

বৃষ্টিপাত আরও বাড়তে পারে

নিজস্ব প্রতিবেদক / ৪৪ বার পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : বুধবার, ৯ জুন, ২০২১, ১০:৪৫ অপরাহ্ন

বাংলা পঞ্জিকা মতে গ্রীষ্ম থাকবে আরও চার দিন। কিন্তু ইতোমধ্যেই দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে প্রভাব বিস্তার করেছে দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমী বায়ু। বিশেষ করে ময়মনসিংহ, বরিশাল, চট্টগ্রাম, ঢাকা ও সিলেট বিভাগ পর্যন্ত অগ্রসর হয়েছে। দেশের বাকি অংশেও এটি দ্রুত বিস্তৃত হবে। এরপরই ঘন বর্ষায় সিক্ত হবে বাংলার প্রকৃতি।

মৌসুমী বায়ুর আংশিক বিস্তারেই কয়েক দিন ধরে বর্ষা হচ্ছে। এর ধারাবাহিকতায় বুধবারও বর্ষণে সিক্ত হয় রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন এলাকা। সঙ্গে ছিল অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি। ভারত মহাসাগরের ওপার সেই সুদূর আফ্রিকা উপকূল থেকে আসা এই বায়ুর কারণেই বাংলাদেশসহ উপমহাদেশ দেখা পায় বর্ষা ঋতুর।

আবহাওয়া বিভাগ (বিএমডি) জানিয়েছে, বুধবার দুপুর ১২টায় রাজধানীতে বৃষ্টিপাত শুরু হয়। থেমে থেমে তা চলে প্রায় ২ ঘণ্টা। তবে বর্ষণের এই ধারা বুধবার সন্ধ্যা পর্যন্ত আগের ২৪ ঘণ্টাই ছিল। এই সময়ে ঢাকায় ২৩ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়। দিনের সামান্য বৃষ্টিতেই রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে সৃষ্টি হয় জলাবদ্ধতা। বিশেষ করে অলিগলিতে কোথাও হাঁটু পানি জমে যায়। এতে চরম ভোগান্তি পোহাতে হয়েছে নগরবাসীকে।

বিএমডির আবহাওয়াবিদ হাফিজুর রহমান বলেন, বলতে গেলে বর্ষা মৌসুম এসে গেছে। আর এবারে বর্ষার আগেই মৌসুমী বায়ু দেশের ওপর প্রভাব বিস্তার করেছে। এতে একটা সিক্ত অবস্থা বিরাজ করছে। এই বৃষ্টিপাতের প্রবণতা ৫ দিন আরও বাড়তে পারে। এই সময়ে উত্তর বঙ্গোপসাগরে একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হতে পারে।

বিএমডি আগামী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলেছে- রংপুর, রাজশাহী, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের অনেক জায়গায় এবং ঢাকা, ময়মনসিংহ, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে মাঝারি ধরনের ভারী থেকে ভারী বর্ষণ হতে পারে।

সূত্রঃ যুগান্তর


আপনার মতামত লিখুন :
এ জাতীয় আরো খবর ....
এক ক্লিকে বিভাগের খবর