বৃহস্পতিবার, ২০ জানুয়ারী ২০২২, ০৮:১৬ অপরাহ্ন
ঘোষণা:
জেলা প্রতিনিধি, উপজেলা প্রতিনিধি, ক্যাম্পাস প্রতিনিধি, বিভাগীয় প্রতিনিধি, ভ্রাম্যমাণ প্রতিনিধি হিসেবে যোগ দেয়ার জন্য জীবনবৃত্তান্ত, জাতীয় পরিচয় পত্রের কপি, পাসপোর্ট সাইজের ছবি ইমেইল করুন [email protected]  এই ঠিকানায়

গানের পাখি লিনা আক্তার!

নিজস্ব প্রতিবেদক / ২৪ বার পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : শুক্রবার, ১৪ জানুয়ারী, ২০২২, ১১:২৭ পূর্বাহ্ন

লিনা আক্তার,একেক বানীর একেক সুরে যেন নিজেকে মানিয়ে নেয় জলের মতো। স্রোতারাও প্রশংসায় মাতোয়ারা। ইন্টারনেট দুনিয়ার ভিজ্যুয়াল মিডিয়ায় হালের চরম চাহিদায় লিনা আক্তারের গান।

কুষ্টিয়ার দৌলতপুরের এই নারী সঙ্গীতের দুনিয়ায় প্রথম নিজেকে পরিচিত করান পাঁচ বছরের শৈশবে। গানের হাতে খড়িও পাক্কা ওস্তাদজীর! প্রখ্যাত সংগীতশিল্পী ওস্তাদ শফী মন্ডল লিনা ওরফে লিনা পাগলীর সঙ্গীত গুরু। দৌলতপুরের আরও দুই সঙ্গীত শিক্ষক, প্রবীণ শিল্পী সরকার আমিরুল ইসলাম এবং শাহনেওয়াজ নান্টুর কাছেও চলে তালিম।

শৈশবে মনের মতো গান আর পরে শাস্ত্রীয় দিয়ে শুরু সঙ্গীতের মূল ধারা। গানের দুনিয়ায় শিক্ষার খাতা খোলা হয় নজরুল গীতি,রবীন্দ্র সংগীত আর দেশাত্মবোধক দিয়ে। ভাওয়াইয়া,ভাটিয়ালির পদচারণায়ও মাতিয়েছেন এ অঞ্চলের শ্রোতাদের।

লিনার মুখে শিল্পী হয়ে ওঠার মানে হলো, গান ভালোবাসি, গান গাইতে ভালো লাগে, জানিনা গানকে কবে আপন করে নিলাম খুব!

পেশাদার শিল্পী লিনা এখনও শিখছেন সঙ্গীতের নানা বিষয় নিয়ে। আধ্যাত্মিক ধারার গানের দিকেই বেশি ঝোঁক তার। তবে তার ভালো লাগে সব গান। শিল্পী লিনার মতে তার শ্রোতারা তার কণ্ঠে বেশি শুনতে পছন্দ করেন লালন গীতি। চার ভাইবোন বাবা মায়ের পরিবারের সাথে লিনা যোগ পেয়েছে স্বামী সংসার। অবশ্য শিল্পী, বাদক স্বামীর পরিবারেও গানের পদচারণায় স্বাধীন এই প্রতিভাবান মেধাবী শিল্পী।

সাক্ষাৎকারে এক প্রশ্নের জবাবে এই নারী বলেন, গান ভালোবাসি, ভালোবেসে যত্নে গাইতে চাই। গানের মাধ্যমে মানুষের মধ্যে জ্ঞান বিস্তার করতে পারলে নিজেকে স্বার্থক মনে করবো। পাশাপাশি পরিচ্ছন্ন ও সুষ্ঠু বিনোদন সাংস্কৃতির একজন কর্মী হতে পেরে নিজের কাছেও ভালো লাগে আমার।

যুগের সাথে তাল মেলাতেই ইউটিউব দুনিয়ায় প্রবেশ কলেজ পড়ুয়া শিল্পী লিনার। ইতোমধ্যে প্রকাশ পেয়েছে তার একক এ্যালবাম রংমহল। প্রাপ্তির ঝুলিতে আছে চারটি মৌলিক গানও। বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় পুরষ্কার প্রাপ্তির লম্বা তালিকা এই তরুণ কণ্ঠশিল্পীর।

রিংকু এন্ড সম্পর্ক, কুষ্টিয়া বাউল মিডিয়া, ফিল্ম পেট্রোলসহ বেশ কয়েকটি ইউটিউব চ্যানেলে লিনার গান শুনছেন স্রোতা দর্শকেরা।

মঞ্চ মাতানো লিনা একই মঞ্চে গান করেছেন ফরিদা পারভীন, নকুল কুমার বিশ্বাস, মমতাজ বেগম,রিংকু, লুইপার মতো সেলিব্রিটি শিল্পীদের সাথে।

মান্না দে আর অনুপ জালোটার গান শুনতে পছন্দ করেন লিনা আক্তার। প্রিয় পোশাক শাড়ী আর প্রিয় রং সাদা। শখের খাতা ভরে কেবলই গানের নাম।

কখনো হারমনিয়াম, কখনো একতারা কখন খঞ্জনী হাতে দর্শক মাতাতে দেখা যায় কি সুন্দর এক গানের পাখি লিনা কে।


এ জাতীয় আরো খবর ....
এক ক্লিকে বিভাগের খবর