সোমবার, ০৩ অক্টোবর ২০২২, ০৫:০০ অপরাহ্ন

কুষ্টিয়ায় সাপের কামড়ে পুত্রবধূ ও শাশুড়ীর মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক / ৩৪ বার পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ৬:২৮ অপরাহ্ন
Illustration, what made by ink and pencil on paper, then it was digitalized.

কুষ্টিয়ার খোকসা উপজেলায় বিষাক্ত সাপের কামড়ে জয়নব বেগম (৬২) ও তার পুত্রবধু কামরুন্নাহার (১৮) মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে।
মঙ্গলবার (১৩ সেপ্টেম্বর) কুষ্টিয়ার খোকসা উপজেলার জয়ন্তীহাজরা ইউনিয়নের নামুদানিপুর এলাকায় রাতে ঘুমের মধ্যে জয়নব বেগম ও তার পুত্রবধু কামরুন্নাহারকে সাপে কামড় দেয়। পরে পরিবারের সদস্যরা স্থানীয় ওঝা ডেকে তাদেরকে ঝারফুক করায়। পরবর্তীতে তাদের অবস্থার অবনতি হলে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদেরকে মৃত ঘোষণা করে।
নিহত জয়নব বেগম খোকসা উপজেলার নামুদানিপুর এলাকায় মো. আব্দুস ছাত্তারের স্ত্রী ও নিহত কামরুন্নাহার  একই এলাকার মো. হাবিবুল বাশারের স্ত্রী। নিহত কামরুন্নাহার নিহত জয়নব বেগমের পুত্রবধূ। নিহত কামরুন্নাহারের সাথে মো. হাবিবুল বাশারের সম্প্রতি বিয়ে হয়।
জয়ন্তীহাজরা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সাকিব খান টিপু জানান, সোমবার রাতে গ্রামের আব্দুস ছাত্তারের পরিবারের লোকজন রাতে খাবার খেয়ে ঘুমাতে যায়। রাত ২টার পর নববধূ কামরুন্নাহার তার স্বামী হাবিবুল বাশারকে জানান তার  মাজায় কিসে যেন কামড় দিয়েছে।
 এই সময় পাশের ঘর থেকে তার শাশুড়ী জয়নব বেগমও তার স্মামী আব্দুস সাত্তারকে জানান তার হাতে কিসে যেন কামড় দিয়েছে। রাতেই ওঝা ডেকে এনে ঝাড়ফুক করায়। এতে তাদের অবস্থার অবনিতি হলে প্রথমে তাদের খোকসাা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়। সেখান থেকে তাদের উন্নত চিকিৎসার জন্য কুষ্টিয়া জেলারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদেরকে মৃত ঘোষণা করে।
নিহত জয়নব বেগমের স্বামী আব্দুস সাত্তার জানান মাত্র ৬ মাস আগে আমার ছেলের সাথে কামরুন্নাহারের বিয়ে হয়। মেহেদীর রং মোছার আগেই সাপের কামড়ে এভাবে তার মৃত্যু হলো। তার সাথে সাথে আমার দীর্ঘদিনের সঙ্গী স্ত্রীও মারা গেলো এতো কষ্ট সয়বার নয়।
খোকসা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার কামরুজ্জামান সোহেল বলেন, রোগীদের মুমূর্ষ অবস্থায় পরিবারের সদস্যরা ভোরে হাসপাতলে নিয়ে আসেন।
প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হয় তাদের সাপে কেটেছে। তবে বিষয়টি নিশ্চিত করা ও উন্নত চিকিৎসার জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়।
এ বিষয়ে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের চিকিৎসক সুতপা রায় জানান, হাসপাতালে আসার আগেই তাদের দুজনের মৃত্যু হয়। আমরা তাদের শরীরে সাপের কামড়ের চিহ্ন পেয়েছি। আমরা ধারণা করছি তাদের বিষাক্ত সাপের কামড়েই মৃত্যু হয়েছে।  তিনি আরও জানান জয়নব বেগমের মুখের পাশে ও কামরুন্নাহারের বুকে সাপের কামড়ের চিহ্ন পায়। মৃতদেহ ময়নতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে।


এ জাতীয় আরো খবর ....
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
Translate »
error: Content is protected !!
Translate »
error: Content is protected !!